Header Ads

দলের জন্য কিছু করতে পারলে খুশি লাগে সাইফউদ্দিনের


নিজেদের 'লাকি গ্রাউন্ডে' চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ৭ উইকেটের জয় দিয়ে সিরিজ ইতোমধ্যেই নিশ্চিত করে ফেলেছে বাংলাদেশ। বুধবারের এই ম্যাচে বাংলাদেশ দলের সবচেয়ে বড় টার্নিং পয়েন্ট ছিল শেষ পাঁচ ওভারে জিম্বাবুয়েকে কোনো চার-ছয় না দিয়ে মাত্র উনিশ রানে আটকে রেখে বড় স্কোর গড়তে না দেয়া। 
দলের এই অর্জনে বড় অবদান রেখেছেন টাইগার অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন। জিম্বাবুয়ের তিন ব্যাটিং স্তম্ভ মাসাকাদজা, উইলিয়ামস, চিগম্বুরারকে সাজঘরে ফিরিয়েছেন তিনি। যার ফলাফল ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হয়েছেন সাইফউদ্দিন। তাই ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে সাইফউদ্দিনের এমন পারফরম্যান্স নিয়েই কথা উঠলো সবার আগে।
এই ম্যাচের পারফরমেন্সের মূল্যায়ন করতে গিয়ে সাইফউদ্দীন বলেন, ‘যেহেতু আমাকে বোলিং অলরাউন্ডার হিসেবে কাউন্ট করে আমার প্রথম স্কিল অবশ্যই বোলিং। বলে উইকেট পেলে বা ইকোনমি বল করলে ভালো লাগে। পাশাপাশি ব্যাটিংটা। চেষ্টা করি দুই বিভাগেই ভালো করার।’
প্রথম ম্যাচে ফিফটি, দ্বিতীয় ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ  তিন উইকেট শিকার- কেমন লাগছে? এমন প্রশ্নের উত্তর সাইফউদ্দিন জানান, 'দলের জন্য কিছু করতে পারলে খুশি লাগে!' ম্যাচসেরা হবার প্রসঙ্গে সাইফউদ্দিন জানান, ‘অভাবিত ছিল ম্যাচসেরা হওয়ার ব্যাপারটি। চেষ্টা ছিল টিমকে কিছু দেবো। পেরেছি এটাতেই আমি খুশি। ম্যান অব দ্য ম্যাচ নিয়ে ভাবনায় ছিলাম না। হঠাৎ যখন ঘোষণা করা হল ভীষণ অবাক হয়েছি।’
শেষ পাঁচ ওভারে কোনো চার-ছক্কা হজম না করা এবং ১৯ রান দেয়া প্রসঙ্গে সাইফউদ্দীন বলেন, ‘উইকেট অনেক ব্যাটিং ফ্রেন্ডলি। মাথায় ছিল ২৫০ এর আগে থামাব জিম্বাবুয়ানদের। মুস্তাফিজ খুব ভালো বোলিং করেছে। পাশাপাশি আরেক দিকেই সুনিয়ন্ত্রিত বোলিং দরকার ছিল। আমি ওই কাজটাই করেছি যাতে মুস্তাাফিজকে সাপোর্ট দেয়া যায়। ওভারে ৫, ৭ রান দিতে পারি এমন লক্ষ্য ছিল।’

No comments

Powered by Blogger.