Header Ads

সাগরতলে সন্ধান মিলল ২০০ টন সোনা ভর্তি জাহাজের!

১১৩ বছর আগে রাশিয়া-জাপান যুদ্ধের সময় সাগরে ডুবে যাওয়া একটি জাহাজে ২০০ টন স্বর্ণের সন্ধান পাওয়ার দাবি করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি কম্পানি। ১৯০৪-১৯০৫ সালে ডুবে যাওয়া জাহাজটি উদ্ধারের তোড়জোড় শুরু হয়েছে।
তবে সোনার পরিমাণ ও তার মূল্য নিয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য পাওয়া গেছে। যুক্তরাজ্য ভিত্তিক দ্য গার্ডিয়ানে বলা হয়েছে, ২০০ টন সোনার দাম জাপানি মুদ্রায় ১৫০ ট্রিলিয়ন উন। যার মূল্য মার্কিন ডলারে ১৩২ বিলিয়ন।
অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া ভিত্তিক এবিসি বলছে, ২০০ টন স্বর্ণের দাম মার্কিন ডলারে ১৩২ বিলিয়ন। আবার কেউ কেউ জাহাজে থাকা স্বর্ণের দাম ১০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বলেও অনুমান করেছে।
এদিকে দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদকের দাবি, ২০০ টন স্বর্ণের যে দাম (পত্রিকাটির রিপোর্ট অনুযায়ী ১৩২ বিলিয়ন ডলার) বলা হচ্ছে তা অতিরঞ্জিত।
জাহাজে যদি ২০০ টন সোনা থেকে থাকে তাহলে তা হবে দক্ষিণ করিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে গচ্ছিত সোনার মজুতের দ্বিগুণ। বিনিয়োগকারীরা জাহাজ উদ্ধারের খবরে প্রভাবিত হয়ে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি আগ্রহী হচ্ছেন। এতে হঠাৎ করে প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ারের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ার মতো ঘটনা ঘটেছে।
আগেও ওই জাহাজটি উদ্ধারের পরিকল্পনা করেছিল একটি প্রতিষ্ঠান। কিন্তু গুপ্তধন উদ্ধার তো পরের কথা, প্রতিষ্ঠানটি নিজেই দেউলিয়া হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত যদি ওই পরিমাণ সোনা উদ্ধার করা যায় তাহলে উদ্ধারকারী প্রতিষ্ঠান পাবে ৮০ শতাংশ আর দক্ষিণ কোরীয় সরকার নেবে ২০ শতাংশ।

No comments

Powered by Blogger.