Header Ads

মেসি-রোনালদো কি ২০২২ বিশ্বকাপে খেলবেন?


২১তম বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নিয়েছে আর্জেন্টিনা ও পর্তুগাল। সেই সঙ্গে ফুটবলের দুই মহাতারকা মেসি-রোনালদোর বিদায়। তবে বয়সের কারণে এখন প্রশ্ন উঠছে ২০২২ সালে কাতার বিশ্বকাপে এ দুই তারকাকে দেখা যাবে কিনা?
প্রশ্নটা যত সহজ, উত্তর ততটা নয়। কাতার বিশ্বকাপে রোনালদোর বয়স হচ্ছে প্রায় ৩৮ বছর। অন্যদিকে মেসির বয়স হবে ৩৫ বছর। সেই বয়সে কি নিজেদের সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখতে পারবেন দুই তারকা? তার উপর এই দ্রুতগতির ফুটবলে ফিটনেস ধরে রাখাও একটা বড় প্রশ্ন। ফলে ভক্তকুল আকুল হলেও এখনও মুখ খোলেননি মেসি। এর আগে একবার তিনি অবসর ঘোষণা করেছিলেন। আবার দেশের সমর্থকদের ডাকে এই বিশ্বকাপের জন্যই নিজের সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নিয়েছিলেন। কিন্তু বিশ্বকাপে সেই ভরাডুবিই হল। এরপর তিনি কী করবেন এখনও নিশ্চিত নয়। তবে অনেকেই মনে করছেন, অবসর ঘোষণা করলে পুরোপুরি ফুটবল ছাড়তে হবে তাঁকে। সেক্ষেত্রে ক্লাব ফুটবলও বঞ্চিত হতে পারে। তাই হয়তো আরও কিছুদিন খেলা চালিয়ে যাবেন আর্জেন্টিনার এই প্রজন্মের ফুটবল জাদুকর।
আর রোনালদো? ২০২২ বিশ্বকাপে তাঁর খেলা প্রায় নিশ্চিত। নিজের পঞ্চম বিশ্বকাপে পর্তুগিজ মহাতারকা নামছেন এমনটাই ইঙ্গিত দিয়ে দিয়েছেন ফার্নান্দো স্যান্টোস।রাশিয়া থেকে পর্তুগালের বিদায়ের পর তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, রোনালদো পরের বিশ্বকাপ খেলবেন কি না। স্যান্টোসের প্রত্যয়ী জবাব, অবশ্যই। রোনালদোর মধ্যে এখনও এমন খেলা আছে যা ভেলকি দেখাতে পারে৷ সুতরাং তিনি বুটজোড়া তুলে রাখবেন এমনটা ভাবছেন না স্যান্টোস। এই বিশ্বকাপ রোনাল্ডো একার কাঁধেই পার করে দেবেন, এমন প্রত্যাশা অনেকেরই ছিল৷ তা সম্ভব হয়নি। তবে তার জন্য রোনালদোকে দায়ী করতে নারাজ স্যান্টোস। জানিয়েছেন, কেউ একা কিছু করতে পারে না। রোনালদোর একার পক্ষে যা সম্ভব তাই-ই করেছেন। স্যান্টোসের কথা অনুযায়ী তাই রোনালদোর পরের বিশ্বকাপে নামা একরকম পাকা-পোক্ত।
যদিও দুই তারকার সিদ্ধান্ত এখনও অজানা। তবে শেষমেশ দু’জনেই যদি খেলা চালিয়ে যান তবে লাভবান হবেন ফুটবলপ্রেমীরাই।

No comments

Powered by Blogger.