অ্যান্ড্রয়েড ৬ পয়েন্ট ০ এর ১১টি হিডেন ফিচার যেগুলো আপনি জানেন না

২০১৬ সালের শেষের দিকে অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ বা অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালো বাজারে ছেড়ে ছিলো গুগল। আর বর্তমানে প্রায় সকল বাংলাদেশী নতুন অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোতে আপনি অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ পেয়ে যাবেন। তো প্রায় বছর খানেক হয়ে গিয়েছে এই অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ আমরা ব্যবহার করে আসছি। কিন্তু আজ আমি টেকটিউনসে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোর ১১টি গোপন ফিচার যেগুলো হয়তো এখনো আপনি যানেন না! তবে বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েড ৮ বাজারে অলরেডি চলে এসেছে! আর আপনারা হয়তো এখন অ্যান্ড্রয়েড ৭ চালাচ্ছেন তবে ম্যাক্সিমাম অ্যান্ড্রয়েড এখন মার্শম্যালোতে চলছে!

সত্যি কথা বলতে গেলে অ্যান্ড্রয়েড ৫.০ আর অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ এর মধ্যে ভিজুয়্যাল দিক থেকে আপনি তেমন কোনো পার্থক্য খুঁজে পাবেন না। তবে অ্যান্ড্রয়েড ৬.০তে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এপিআই আপগ্রেড করা হয়েছে যেটা আপনি সঠিক ডিভাইস ছাড়া টের পাবেন না। এছাড়াও ওদিকে একটি ব্যাটারী সেভিং ফিচার Doze ও আপনি অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোতে পেয়ে যাবেন আপগ্রেড হিসেবে। তো চলুন আর ভূমিকায় কথা না বাড়িয়ে সরাসরি টিউনে চলে যাই।

১) গুগল নাও এখন ট্যাপে!অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের অন্যতম কুল ফিচার হলো এই গুগল নাও ফিচারটি। তবে এখন অ্যান্ড্রয়েড ৬.০তে আপনি আপগ্রেড হিসেবে পাচ্ছেন Google Now on Tap! এই ফিচারটির মাধ্যমে আপনি চলমান যেকোনো এপে সরাসরি গুগলনাও ফিচারটি ব্যবহার করতে পারবেন উক্ত এপপটি চলমান থাকা অবস্থাতেই! এই ফিচারটি ব্যবহার করতে চাইলে যেকোনো এপ চলমান থাকা অবস্থা হোম বাটনটি লং প্রেস করে দেখে নিন। প্রথম বার একটিভ করার জন্য আপনাকে স্ক্রিণে দেখানো কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করে যেতে হবে। পরবর্তীতে শুধুমাত্র হোম বাটন লং প্রেস করলেই এই ফিচারটি কাজ করা শুরু করবে।

এই ফিচারটি আপনার চলমান এপপটির উপর একটি গুগল নাও ওভারলে তৈরি করবে এবং আপনার ব্যবহারের জন্য রেডি হয়ে যাবে। শুধু তাই নয়, আপনি যদি কোনো মুভি দেখতে থাকেন আর গুগল নাও ট্যাপ চালু করেন তাহলে গুগল নাও মুভিটির সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নেট থেকে নামিয়ে আপনাকে দেখাবে এবং কোনো গান শুনতে থাকলে নেট থেকে গানটির তথ্যাবলি রেডিমেট আকারে আপনাকে দেখাবে। তো ফিচারটি আপনি এখনি চেক করে দেখতে পারেন।

২) কাট পেস্ট ইমপ্রুভমেন্ট!অ্যাপেলের আইওএস এর থেকে অ্যান্ড্রয়েড এই বিষয়টি কপি পেস্ট করেছে বলা যায়! কারণ অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ এর কাট পেস্ট সিস্টেমটি আইওএস এর সাথে অনেকটাই মিলে যায়। মার্শম্যালো আপনি কোনো টেক্সকে হাইলাইট করে নিলে এর উপরে একটি কাট/পেস্ট/সার্চ পপ আপ টুল বক্স চলে আসবে। যেটা আগে স্ক্রিণের উপরে চলে আসতো এটা এখন টেক্স এর উপরে চলে আসবে। এভাবে এই ফিচারটির আপগ্রেডের মাধ্যমে আমরা এখন অ্যান্ড্রয়েডে কাট পেস্ট কাজটি আরো সহজতর হিসেবে করতে পারছি। আপনার কাছে দুটি অ্যান্ড্রয়েড ৪ এবং অ্যান্ড্রয়েড ৬ সেট থেকে থাকলে এই ফিচারটির পাথর্ক্যটি এখনি দেখে নিতে পারেন।

৩) লক স্ক্রিণ থেকে সরাসরি ভয়েস সার্চ!অ্যান্ড্রয়েডের আগের সংস্করণগুলোকে লক স্ক্রিণে আমরা শুধুমাত্র ক্যামেরা এবং ইমারজেন্সি কলস অপশন দুটিকে পেয়ে থাকতাম। তবে এখন অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ য়ে আমরা লক স্ক্রিণে ভয়েস সার্চ অপশনটিও পাবো। লক স্ক্রিণ থেকেই কোনো পাসওর্য়াড না দিয়েই আমরা ভয়েস সার্চ ফিচারটি উপভোগ করতে পারবো এই অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোতে! এই ফিচারটির মাধ্যমে আমাদের জরুরী সময়ে দ্রুত কাজ করা যাবে এবং সময়ের অপচয় রোধ করতে পারবো আমরা!

৪) সিকুরেটি চেকের ব্যবস্থা!অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমটি ওপেন সোর্স হওয়ায় এতে মাঝেমধ্যেই বিভিন্ন ধরনের বাগ দেখা দিয়ে থাকে। এই সকল বাগ নিয়ে সমাধানের কাজে গুগল সবসময় লেগে থাকে। আর তাই গুগল প্রতি মাসেই একটি করে সিকুরিটি প্যাচ নেটে ছেড়ে থাকে। আর এখন অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ থেকে আপনি সরাসরি আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস থেকেই সিকুরিটি চেক করতে পারবেন এবং আপগ্রেড করিয়ে নিতে পারবেন। এর জন্য আপনার ডিভাইসটিকে Monthly Update Regime এর একটি একটিভ মেমরার হতে হবে আর তাহলেই আপনি আপনার সেটের সেটিংস এ গিয়ে About Phone অপশন থেকে Android Security Patch Level নেট থেকে চেক করতে পারবেন এবং আপগ্রেডও করতে পারবেন।

৫) এপ্লিকেশন পারমিশন!এবার আপনি নির্দিষ্ট প্রায় সকল অ্যাপসের পারমিশনগুলোকে টুগেল অপশনের মাধ্যমে চালু কিংবা বন্ধ করে দিতে পারেন। এর আগে এই ধরনের সুবিধাটি এই ফিচারটির মধ্যে ছিলো না। কোনো অ্যাপস ইন্সটল করার সময় অ্যাপসটির পারমিশনগুলোকে আপনি দেখতে পারতেন কিন্তু নির্দিষ্ট পারমিশনটি চালু বা বন্ধ করতে পারতেন না তবে এখন সেই সুবিধাটি আপনি পেয়ে যাবেন এই অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোতে। নেটে বিভিন্ন সুন্দর সুন্দর স্ক্রিণসেভার পাওয়া যায় এবং এই রকম সুন্দর একটি স্ক্রিণসেভার আপনার পছন্দ হলো কিন্তু এপটির নেটে প্রবেশ করার পারমিশন রয়েছে এবং এরজন্য হঠাৎই লক স্ক্রিণে আপনি বিভিন্ন ধরনের এড দেখতে পান! এই সমস্যার সমাধানও এই পারমিশন অফ করে দিয়ে করে নিতে পারবেন।

এই সুবিধাটি উপভোগ করতে হলে Settings > Apps > [tap a particular app] > Permissions এখানে গিয়ে সকল পারমিশনগুলো টুগেল সিস্টেমে আপনি দেখতে পাবেন। এই ফিচারটির মাধ্যমে আপনার ফোনের ইন্সটলকৃত সকল অ্যাপসের কনট্রোল এবার আপনার হাতে থাকবে।

৬) গুগল লাইভ সেটিংঅ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা গুগলের নিজস্ব সকল এপ্লিকেশনের ব্যাপারে অবশ্যই জেনে থাকবেন। এছাড়াও গুগলের ইকোসিস্টেম সম্পর্কে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা আগে থেকেই সচেতন হয়ে থাকেন। প্রতি অ্যান্ড্রয়েডের আপডেটে গুগল তার ইকোসিস্টেমের জন্য বেশ কিছু পরিবর্তন এনে থাকে। অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোতেও তাই হয়েছে। গুগলের যাবতীয় সকল অ্যাপসের সেটিং এবার আপনি একটি জায়গাতেই পেয়ে যাবেন আর সেটি হলো গুগল সেটিং! যেটি অ্যান্ড্রয়েডের সেটিংস সাব মেনুতে গুগল নামে দেওয়া রয়েছে। এবার গুগলের সকল অ্যাপসের সেটিং আপনি এক জায়গাতেই পেয়ে যাবেন এবং এতে আপনার সময় বাঁচবে আর দরকারী সময়ে সঠিক অ্যাপসের সেটিং খুঁজে বের করতে আর কস্ট হবে না।

৭) স্মার্ট লকপাসওর্য়াডের সেক্টরেও মার্শম্যালোতে আমরা নতুন একটি আপগ্রেড ফিচার পেয়েছি। যার নাম Smart Lock for Password. এর মাধ্যমে আমরা সহজেই আমাদের কঠিন পাসওর্য়াডগুলোকে সহজেই মনে রাখতে পারবো। এই নতুন ফিচারটি আপনি Settings > Google > Smart Lock For Passwords এখানে গিয়ে পেয়ে যাবেন। এই ফিচারটির মাধ্যমে আপনার সেটের যাবতীয় পাসওর্য়াডগুলো আপনার প্রাইমারী গুগল একাউন্টে ক্লাউডে সংরক্ষিত হয়ে থাকবে। এতে আপনি নতুন ডিভাইসে একাউন্ট দিয়ে সাইন ইন করলেই অটোমেটিক্যালী আপনার পুরোনো ডিভাইসের পাসওর্য়াড সেটিংসকে আপনি আগের মতোই পেয়ে যাবেন। এছাড়াও একই জায়গায় আপনি Auto sign-in ফিচারটিও পেয়ে যাবেন। যেগুলো সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি অ্যান্ড্রয়েডের পূর্ণাঙ্গ মজা পেতে পারেন।

৮) পাওয়ার সেভিং এক্সেপশনস:অ্যান্ড্রয়েড সাধারণত আপনার কম ব্যবহৃত এপপ বা এপপসগুলোকে sleep এর মাধ্যমে ইনএকটিভ করে রাখে যাতে সেটা আর আপনার ডিভাইসের ব্যাটারী না খেতে পারে। আগের অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণগুলো এই পাওয়ার সেভিংস এর জন্য আলাদা কোনো মেন্যু ছিলো না। যার কারণে অ্যান্ড্রয়েডের সকল অ্যাপসগুলোকেই পাওয়ার সেভিংসের আন্ডারে চলে যেতো। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোতে আপনি এই পাওয়ার সেভিং এর জন্য আলাদা একটি মেন্যু পাচ্ছেন। যেখানে আপনার প্রয়োজনীয় অ্যাপসকে এই পাওয়ার সেভিংয়ের থেকে মুক্ত রাখতে পারেন কিংবা সরাসরি এই পাওয়ার সেভিং ফিচারটিকেই ডিজেবল করে রাখতে পারেন, আপনার ইচ্ছে।

৯) সিক্রেট ইউআই টিউনার মেন্যু!সো, অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোতে আমরা একদম সিক্রেট একটি মেন্যু পাচ্ছি! ব্যাপারটা জটিল তো! এই সিক্রেট মেন্যু একটিভ করতে হলে আপনাকে সেটিং মেন্যুর আইকন (Gear Icon) টিকে লং প্রেস করে রাখতে হবে। এতে প্রথমবার করলে একটি পপ আপ বার্তা আসবে যেখানে লেখা থাকবে যে একটি সিক্রেট মেন্যু আপনার সেটিংয়ে যুক্ত করা হয়েছে। এখানেও প্রথম বারের মতো প্রবেশ করলে আপনাকে আরেকটি সর্তক বার্তা দিবে যে এটির উল্টা পাল্টা ব্যবহারের কারণে অ্যান্ড্রয়েডের সমস্যা হতে পারে। তাই যারা অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের এডভান্সড ব্যবহারকারী নন তারা এই টিক্সটি এড়িয়ে যাওয়াই উত্তম! এই সিক্রেট টিউনার মেন্যুতে বেশকিছু tweaks রয়েছে যেগুলো আপনি নিজেই টেস্ট করে নিতে পারেন।

তবে একটা কথা হলো, এই সিক্রেট টিউনার মেন্যুটি শুধুমাত্র টেস্ট সাবজেক্ট হিসেবে কিছু কিছু অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালো ডিভাইসে আপনি পাবেন। যেমন Nexux 7 ট্যাবলেটে আপনি এই টিউনার মেন্যুটি পাবেন কিন্তু স্যামসংয়ের অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে আপনি এটা পাবেন না কারণ স্যামসং এটিকে এখনো গ্রিন সিগন্যাল দেয় নি।

১০) কুইক সেটিংস মেন্যু ইডিট!৯ নাম্বার টিক্সটি যদি আপনি একটিভ করে থাকেন মানে সিক্রেট টিউনার মেন্যুটি যদি চালু করে থাকেন তাহলে এই টিক্সটি আপনার জন্য কাজ করবে। মানে হলো এই টিক্সটি কাজ করার জন্য প্রথমে আপনাকে উক্ত সিক্রেট টিউনার মেন্যুটিকে চালু করতে হবে।

সাধারণত আপনি যখন আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসটির ডিসপ্লে পুল ডাউন করে থাকেন তখন একটি কুইট সেটিং মেন্যু আপনার সামনে চলে আসে। আগের অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসগুলোতে আপনি শুধুমাত্র এই কুইক সেটিংসগুলোর পজিশন পরিবর্তন করতে পারতেন। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোতে আপনি এই কুইক সেটিংস অপশনগুলোকে পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। ব্যাপারটি আগে জেনে না থাকলে এখনই ট্রাই করে দেখতে পারেন।

১১) গেম!এটি নতুন করে কিছু বলার নেই। অনেক অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা এই ফিচারটির সম্পর্কে আগে থেকেই জেনে থাকবেন। অ্যান্ড্রয়েডের আগের সংষ্করণের মতোই এই মার্শম্যালোতে একটি বিল্ট ইন ড্রয়েড গেম রয়েছে যেটি আপনি Settings > About > The Android Version ট্যাবে কয়েকবার ট্যাপ দিয়ে আনলক করতে পারেন। এরপর আপনার স্ক্রিণে অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোর লোগো আসবে এবং Flappy Bird এর অ্যান্ড্রয়েড সংষ্করণের গেমে আপনি চলে যাবেন। গেমটি খুবই হার্ড একটি গেম আমি নিজে প্রথম কয়েকটি বারের পর আর যেতে পারিনি! হাস্যকর ব্যাপার হলো এতে আপনি একই সাথে ৪ জন মিলে খেলতে পারবেন! বলে কি!

তো এই হলো অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালোর ১১টি হিডেন ফিচার যেগুলো আপনারা হয়তো জানতে না, কিন্তু এখন যেনে গিয়েছেন! তো কেমন লাগলো আজকের আমার এই টিউনটি?

Comments