বরফে ঢেকেছে সাহারা মরুভূমি

 যেখানে তাপমাত্রা সব সময় ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে থাকে সেখানে এখন বরফ পড়ছে। বরফে ঢেকে গেছে এ মরু প্রান্তর। উত্তুরে হাওয়ার দাপটে রুক্ষ, শুষ্ক, তপ্ত মরুভূমি এখন হিম শীতল। সোনালি বালুর উপর পড়েছে সাদা বরফের আস্তরণ। তুষারপাতে যখন কাবু অন্যসব দেশ, তখন সাহারার এই তুষারপাতে যারপরনাই খুশি সেখানকার অধিবাসীরা। সাহারার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এইন সেফরায় শহরে ১৫ ইঞ্চি তুষারপাত হয়েছে। এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো ওই মরু অঞ্চলে তুষারপাত হয়েছে। প্রথমবার তুষারপাত হয়েছিল ১৯৭৯ সালের ১৮ ফেব্রয়ারি। সেদিন মরু অঞ্চলের বাসিন্দারা বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না তাদের হাতে, গায়ে এসে পড়ছে নরম তুলোর মত বরফ। অনাবিল আনন্দে প্রায় কেঁদে ফেলার উপক্রম হয়েছিল তাদের। কেউ বলেছিলেন ঐশ্বরিক আবার কেউ এই বিসদৃশ ঘটনায় গভীর চিন্তায় ডুবে গিয়েছিলেন। তারপর প্রায় ৩৭ বছর পর ২০১৬ সালে ফের বরফের আস্তরণে ঢেকেছিল সাহারা। পরের বছরও এই একই আবহাওয়া দেখেছিলেন এই মরুদেশের বাসিন্দারা। ২০১৭ সালের পর আবার ২০১৮ সালে নিয়মের বাইরেও যে ঘটনা ঘটে এবার তারা বিশ্বাস করতে শুরু করেছেন। স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন স্ক্যান্ডিনেভিয়া বা ইউরোপের দেশগুলোতেই এমন তুষারপাত দেখা যায়। কিন্তু এখন এই মরুভূমিতেও আমরা তুষারপাত দেখতে পাচ্ছি। কামেল সেক্কোওরি নামের এক বাসিন্দা এইন সেফরা এলাকায় বড় হয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, গত ৪০ বছরে তিনি বেশ কয়েকবার তুষারপাত দেখেছেন। তিনি বলেন, আমাদের কাছে এটা একেবারেই অবিশ্বাস্য, আশ্চর্যজনক, যাদুকরী এবং উত্তেজনাপূর্ণ ঘটনা। তিনি আরও বলেন, বরফের ওপর দিয়ে হাঁটলে মনে হয় যেন কোনো মঙ্গল গ্রহ বা অন্য কোনো গ্রহে চলে এসেছি।

Comments