Header Ads

আপনার বদহজমের জন্য তাৎক্ষনিক ঘরোয়া প্রতিকার

আপনার যদি মনে হয় আপনার পেট ফুলে উঠেছে ও আপনি অস্বস্তি বোধ করছেন, তাহলে আপনার বদহজম সংক্রান্ত সমস্যা হয়ে থাকতে পারে। কারো হয়তো সবথেকে খারাপ অনুভূতিগুলোর মধ্যে বদহজম অন্যতম একটি, কারণ এটা অনেকরকম অস্বস্তির সৃষ্টি করে। এটা একটা সাধারণ শারীরিক পরিস্থিতি যার মুখোমুখি আমরা সবাই কখোন না কখোন হয়েছি। তাই, এমন পরিস্থিত থেকে নিস্তার পেতে নিচে কিছু ঘরোয়া প্রতিকার সম্বন্ধে তথ্য দেওয়া হল। আসুন, দেখে নেওয়া যাক।

প্রথমদিকে হয়তো সাধারণ কিছু উপসর্গ যেমন, বমিভাব, পেটে জ্বালা-পোড়া, ঢেঁকুর ওঠা, পেট ফোলাভাব বা গ্যাস দিয়ে শুরু হতে পারে। বদহজম সাধারণত, বেশি তেলমশলা জাতীয় খাবার খেলে বা অতিরিক্ত খেয়ে ফেললে হতে পারে। হজমে সাহায্যকারী পাকস্থলীর অ্যাসিডগুলির কার্যক্ষমতা কোনভাবে বিঘ্নিত হলে, খাবারগুলি ভালভাবে হজম হয়না। এটিই বদহজমের কারণ হতে দাঁড়ায়। বদহজমের অস্বস্তি সহ্য করতে পারছেন না, তাৎক্ষণিক নিস্তার পেতে আপনি নিশ্চই নানারকম চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যাবহার করবেন। কিন্তু সেগুলি কার্যকর নাও হতে পারে। তাই, আপনি যদি বদহজমের সমস্যা থেকে তাৎক্ষণিক নিস্তার পেতে চান তবে ঘরোয়া প্রতিকার ছাড়া এর থেকে ভাল উপায় আর কিছু হতে পারে না। এর আরেকটিও ভাল দিক হল, এর কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। আসুন একবার দেখে নেওয়া যাক, নিচে দেওয়া ঘরোয়া প্রতিকারের সূচিটা।১ দুই টেবিল-চামচ লেবুর রস, আদাত রস ও মধু নিন। এবার এগুলিকে এক গ্লাস গরম পানি ভাল করে মিশিয়ে, খাবার পর খেয়ে নিন। এটি বদহজম নিরাময়ে সাহায্য করে।

২ এক চা-চামচ ধনে গুঁড়ো এক গ্লাস ছাঁচে (বাটারমিল্ক) মিশিয়ে খেয়ে নিন। এটি বদহজম তাৎক্ষনিক দূরীকরণে অন্যতম একটি উপায়।

৩ যদি আপনার মনেহয়, আপনি বদহজম জনিত সমস্যায় ভুগছেন, তাহলে আপনি খাবার খাওয়ার পর গ্রীন টি বা অন্য কোন ভেষজ চা খেয়ে নিন। এটি বদহজমের উপশমে সাহায্য করে।

৪ আদা নিজের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট বৈশিষ্ঠের জন্য পরিচিত। একটা ছোট আদার টুকরো নিয়ে তা থেঁতো করে, এক চিমটি লবণে্র সাথে মিশিয়ে খেয়ে নিন। এটি পাচক রস গুলিকে উদ্দীপিত করে বদহজম সারিয়ে তোলে।

৫ এক টেবিল-চামচ বেকিং সোডা নিয়ে আধা গ্লাস পানির সাথে মেশান। ভালভাবে মিশিয়ে খেয়ে নিন। এটি বদহজমের সমস্যা থেকে তাৎক্ষনিক মুক্তি দেয়।

No comments

Powered by Blogger.