Header Ads

হলুদের উপকারিতা

প্রত্যেক ভারতীয়র ঘরে দেখা পাওয়া যায় তার। প্রতিদিনের রান্নায়ও তো ব্যবহার করেন হলুদ। সবজিতে বা মাছে হলুদ না দিলে রং হয় না ঠিকই, কিন্তু, হলুদের আরও গুনাগুন আছে। সেটা জানেন? হলুদ যদি আপনার প্রতিদিনের ডায়েট চার্টে রাখেন, তাহলে কী কী উপকার পাবেন, জানেন? হলুদের এমন অনেক গুন রয়েছে, যা অনেকেরই অজানা। যেমন বয়স ধরে রাখতে সাহায্য করে হলুদ। বাজার চলতি যে সমস্ত অ্যান্টি এজিং ক্রিম আপনি ব্যবহার করেন, সেই ক্রিমগুলির তুলনায় হলুদ কিন্তু অনেকটাই এগিয়ে। গাঁটের ব্যথা থেকে রক্ষা করতে পারে হলুদ। অর্থাত, প্রতিদিন নিয়ম করে যদি হলুদ খেতে পারেন, তাহলে বিভিন্ন ধরণের ব্যথা থেকে মিলবে মুক্তি। অর্থাত, গাঁটের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে হলুদের সাহায্য নিতেই পারেন আপনি। মস্তিষ্ককে সচল রাখতে সাহায্য করে হলুদ। মস্তিষ্কের যে কোনও ধরণের রোগ থেকেও মুক্তি দিতে পারে হলুদ। খাবারে হলুদ ব্যবহার করলে হজম শক্তি বাড়ানোর ক্ষেত্রেও পেতে পারেন উপকার। অর্থাত, যে কোনও ধরণের খাবারের পর হজম শক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে হলুদ। গ্যাস, অম্বল এবং অ্যাসিডিটি থেকেও মুক্তি দেয় হলুদ। খাবারে বিষক্রিয়ার প্রাথমিক চিকিত্সাও হলুদ দিয়ে করতে পারেন।হৃদ রোগের হাত থেকে রক্ষা করতেও হলুদের জুড়ি নেই। তাই হৃদ রোগের সম্ভাবনা থেকে যদি মুক্তি চান, অবশ্যই ডায়েট চার্টে রাখুন হলুদ।

এসবের পাশাপাশি ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধে, যে কোনও ধরণের ফাঙ্গাল ইনফেকশন থেকে রক্ষা পেতে, অ্যালার্জির হাত থেকে রেহাই পেতে এবং যে কোনও ধরণের ত্বকের সমস্যা সমাধানে হলুদের জুড়ি মেলা ভার। তাই এবার থেকে রান্না ঘরের মশলা হিসেবে ব্যবহারের পাশাপাশি হলুদকে ব্যবহার করে ফেলুন বিভিন্ন কাজে। আর দেখুন ম্যাজিক।

No comments

Powered by Blogger.