তিলে তিলে নিঃশেষ হলো মেয়েটি

মেয়েটি ছিল ঘরবন্দী। জানালাবিহীন ছোট্ট সে ঘর। দিনে একবার মাত্র খাবার জুটত তার। পানির একটা নল ছিল। তেষ্টা পেলে পানি পান করার সেটাই উপায়। এই করে করে বন্দী জীবনের ১৫টি বছর পার। মুক্তি মিলল মৃত্যুতে। মেয়েটিকে বন্দী করে রেখেছিল কে? তাঁর নিজেরই মা–বাবা। মৃত অবস্থায় মেয়েটিকে ওই ঘর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাঁর মা-বাবাকে। ৩৩ বছর বয়সে মেয়েটির ওজন ছিল মাত্র ৪২ পাউন্ড। জাপানের ওসাকায় ভয়াবহ এ ঘটনাটি ঘটে। গত শনিবার মেয়েটির লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ বলছে, বাড়ির শীতল একটি ঘরে মেয়েকে বন্দী করে রেখেছিলেন মা-বাবা। ঘরটির আয়তন ৩৯ বর্গফুট। গ্রেপ্তার করা মা-বাবাকে পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে। মা-বাবার তথ্যের বরাত দিয়ে পুলিশ বলছে, মানসিকভাবে অসুস্থ আর উন্মত্ত হওয়ার কারণে তাঁরা এভাবে সন্তানকে ঘরে আটকে রেখেছিলেন। ওসাকা পুলিশ ২৩ দিনের মধ্যে ওই মা-বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ দেবে। আদালতে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ গঠন করতে আরও কয়েক মাস সময় লাগতে পারে।

Comments