বুবলীই একমাত্র নায়িকা!

বছরের শুরু থেকেই এই সময়ের জনপ্রিয় নায়িকা বুবলীকে নিয়ে আলোচনার শেষ নেই। নিত্যনতুন সিনেমার শুটিংয়ের পাশাপাশি চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর খবরও শোনা গেছে এই নায়িকাকে ঘিরে। কিন্তু সবকিছুকে পাশ কাটিয়ে নিজের মতো করে কাজে মনোযোগী এই নায়িকা। ২০১৭ সালে সার্চ ইঞ্জিন গুগলে বাংলাদেশি সিনেমার যে নায়িকাকে সবচেয়ে বেশি খোঁজা হয়েছে, তিনি বুবলী। সবচেয়ে বেশি সার্চ করা ১০ ব্যক্তির তালিকায় বুবলীর অবস্থান ৯ নম্বরে।

একটা সময় সংবাদ পাঠিকা হিসেবে কাজ করতেন শবনম ইয়াসমীন বুবলী। এরপর সিনেমায় নাম লেখান তিনি। প্রথম সিনেমায় নায়ক হিসেবে পেলেন দেশের সিনেমার সবচেয়ে জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানকে। শামীম আহমেদের প্রথম সিনেমা ‘বসগিরি’ দিয়ে তিনি আলোচনায় আসেন। এখন পর্যন্ত যে কটি সিনেমায় কাজ করেছেন, সব কটিতে নায়ক শাকিব খান। একের পর এক শাকিব খানের বিপরীতে নায়িকা হওয়ার ব্যাপারটিও বুবলীকে আলোচনায় রাখে। সিনেমাপ্রেমী দর্শকেরা এই নায়িকার ব্যাপারে অনেক বেশি আগ্রহী হয়ে ওঠেন। সার্চ ইঞ্জিনে তাঁর অবস্থান সেটারই ইঙ্গিত করে।

দেশের সিনেমার একমাত্র নায়িকা হিসেবে তাঁকে নিয়ে ভক্ত ও দর্শকের এমন আগ্রহে আনন্দিত বুবলী। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে এই নায়িকা বলেন, ‘ব্যাপারটা সত্যি আমার জন্য অনেক বেশি আনন্দের। আমার সিনেমা–জীবন খুব বেশি দিনের না। এই অল্প সময়ে ভক্ত ও দর্শকদের এমন ভালোবাসা ভালো কাজের অনুপ্রেরণা দেবে। ভক্তদের বলতে চাই, আপনাদের এই ভালোবাসার কারণে সামনে আরও ভালো মানের সিনেমা উপহার দেব।’

ভক্ত ও দর্শকদের কাছ থেকে এমন ভালোবাসা পেয়ে আনন্দের পাশাপাশি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেছেন বুবলী। তিনি বলেন, ‘আমি সত্যি অনেক বেশি কৃতজ্ঞ আমার দর্শকদের কাছে—ইন্টারনেটের এই যুগে তাঁরা অনেক ব্যস্ততার মধ্যে আমার বিভিন্ন কাজের খবরাখবর রেখেছেন। ভালো লাগার কথা যেমন বলেছেন, তেমনি আমাকে প্রতিনিয়ত উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। সত্যি এই ব্যাপারটি আমাকে অনেক আনন্দিত করেছে।’

বুবলী মনে করছেন, এসবের মাধ্যমে কিন্তু এটাও প্রমাণিত হয় যে বাংলাদেশের মানুষ এখনো সিনেমা নিয়ে অনেক ভাবছেন। শুধু তা–ই নয়, অভিনয়শিল্পীদের সব ব্যাপারে খোঁজখবর রাখছেন। বুবলীর আশাবাদ, ভবিষ্যতে বাংলা সিনেমা এবং বাংলা সিনেমার শিল্পীরা আরও অনেক দূর এগিয়ে যাবেন।

Comments