Header Ads

হাসপাতাল থেকে গ্রেপ্তার মেসির ভাই

নদীতে দুর্ঘটনার পর রক্তভরা নৌকা ফেলে এসেছেন বলে জানিয়েছিলেন লিওনেল মেসির ভাই ম্যাতিয়েস মেসি। কিন্তু ওই ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে বোটের মধ্যে অবৈধ অস্ত্র পায় পুলিশ।

ফলে হাসপাতালেই গ্রেপ্তার করা হয় মেসির ভাইকে।

ম্যাতিয়েস চোয়াল ভেঙে মুখে অনেক কাটা-ছেঁড়া নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। তার দাবি, রোজারিওর কাছে পারানা নদীতে মটরবোট চালানোর সময় অ্যাক্সিডেন্ট হয়েছে তার। বোটের মধ্যে রক্তের ছোপও দেখা যায়। এই ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে  বোটের মধ্যে পাওয়া গেছে অবৈধ অস্ত্র।

ফলে হাসপাতালে একটু সুস্থ হলে মেসির ভাইকে রিমান্ডে নেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে আদালতে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে আর্জেন্টিনার আইনে সাড়ে আট বছরের জেল হতে পারে ম্যাতিয়েসের। এই অপরাধে সর্বনিম্ন শাস্তিই সাড়ে তিন বছরের জেল।

অবৈধ অস্ত্র বহনের অভিযোগে অবশ্য এর আগেও ম্যাতিয়াস মেসিকে আটক করেছিল আর্জেন্টিনার পুলিশ।

২০১৫ সালের অক্টোবরে ট্রাফিক জ্যামে আটকে থাকা ম্যাতিয়াসের গাড়ি তল্লাশি করে পয়েন্ট ২২-ক্যালিবার পিস্তল খুঁজে পায় পুলিশ, যা লাইসেন্সকৃত ছিল না।

তবে ম্যাতিয়েসের আইনজীবী দাবি করেছেন, সৈকতে ধাক্কা লেগে দুর্ঘটনা ঘটেছে বোটের। যে অস্ত্র পাওয়া গেছে, সেটা পুলিশ সাজিয়ে রাখতে পারে বলেও সন্দেহ তার।

এর আগে ২০০৮ সালের অক্টোবরে আরও একবার পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হন ম্যাতিয়াস। তার কোমরে একটি হ্যান্ডগান উদ্ধার করেছিল পুলিশ।

No comments

Powered by Blogger.