Header Ads

উৎসবে সূর্যগ্রহণ পর্যবেক্ষণ আমেরিকায়ঃ ২০৯০ সালের আগে এমন সূর্যগ্রহণ আর হবে না

আমেরিকায় সোমবার যে সূর্যগ্রহণ দেখা যায় সেটি গত ৯৯ বছরের মধ্যে আর কখনো হয়নি। গত ৫০০ বছরের মধ্যে আটলান্টিক মহাসাগরের দুই পাশে মোট আটটি সূর্যগ্রহণ হয়েছে।

২০৯০ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ ধরনের আরেকটি সূর্যগ্রহণ হবে না। সূর্যগ্রহণ খুব সহসা আসে না । এর কারণ কী? বিজ্ঞানীরা বলছেন এর কিছু সুনির্দিষ্ট কারণ নিশ্চয়ই আছে।

পূর্ণ সূর্যগ্রহণ দেখতে আমেরিকার বিভিন্ন জায়গায় হাজার-হাজার মানুষ ঘরের বাইরে আসেন। লক্ষ্য করা গেছে ব্যাপক প্রস্তুতি।

পৃথিবী এবং সূর্যের মাঝখানে চাঁদ পরিভ্রমণ করে। কিন্তু পৃথিবী এবং সূর্যের তুলনায় চাঁদের কক্ষপথ কিছুটা ঝুঁকে থাকায় চাঁদ হয়তো খুব উপরে নয়তো খুব নিচে অবস্থান করে। সেজন্য প্রতি ১৮ মাসে চাঁদ একবার পৃথিবী ও সূর্যের সমান্তরালে আসে।

তখন সূর্যকে ঢেকে দিয়ে পৃথিবীতে চাঁদের ছায়া পড়ে। চাঁদের তুলনায় সূর্য ৪০০ গুন বেশি বড়। কিন্তু সূর্যের তুলনায় চাঁদ পৃথিবীর কাছাকাছি অবস্থান করে। সেজন্য পৃথিবী থেকে দেখতে চাঁদ ও সূর্যকে অনেকটা একই রকম মনে হয়। চাঁদ সবসময় একই কক্ষপথে সুচারুভাবে পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে না।ফলে সূর্যগ্রহণ সবসময় দেখতে একই রকম হয় না। প্রতিটি সূর্যগ্রহণ সবসময় পৃথিবীর যে কোন জায়গা থেকে দেখা যায় না। প্রতি ৩৭৫ বছর পর সূর্যগ্রহণ মোটামুটি পৃথিবীর সব জায়গা থেকে দেখা যায়।

যদি আপনি আরেকটি সূর্যগ্রহণ দেখতে চান তাহলে পৃথিবীর অন্য জায়গায় যেতে হবে। প্রতি ১৮ মাসে একবার পৃথিবীর কোথাও না কোথাও সূর্যগ্রহণ দেখা যায়।

এ উপলক্ষ্যে আমেরিকায় বিজ্ঞানীরা এবং উত্সুক মানুষ ব্যাপক প্রস্তুতি নেন। গত কয়েকদিন ধরেই এই প্রস্তুতি চলছিল। তারা প্রটেক্টিভ গ্লাস, টেলিস্কোপ এবং ক্যামেরা ব্যবহার করে।

সূর্যগ্রহণ যেখানে দেখা যায় সেখানে এক কোটি ২০ লাখ মানুষের বাস। স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ১০টায় ওরেগনে প্রথম সূর্যগ্রহণ দেখা যায়। আরো অনেক রাজ্য থেকে সূর্যগ্রহণ পর্যবেক্ষণ করা হয়।

No comments

Powered by Blogger.