Header Ads

'উত্তেজক' পোশাক পরে নিষিদ্ধ দাবাড়ু

বয়স মাত্র ১২। কিন্তু এই বয়সেই তাকে পোশাকের কারণে নিষিদ্ধ হতে হলো মালয়েশিয়ার এক দাবা টুর্নামেন্ট থেকে। আয়োজকরা এর কারণ হিসেবে জানিয়েছে, মেয়েটি ‘উত্তেজক’ পোশাক পরেছেন। মেয়েটির পাশাপাশি তার কোচের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করেছে অয়োজকরা।

মেয়েটি দাবার এই টুর্নামেন্টে এসেছিলেন হাঁটুর ওপরে একটি স্কার্ট পড়ে। আর তাই আয়োজকরা তাকে বাদ দিয়েছেন। মালয়েশিয়ায় ন্যাশনাল স্কুল চেস চ্যাম্পিয়নশিপে মঙ্গলবার ঘটেছে এই ঘটনা। দেশটির প্রশাসনিক রাজধানী পুত্রজায়ায় অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টের মাঝপথেই ১২ বছরের এক কিশোরীকে ছেঁটে ফেলেন আয়োজকরা। এ প্রসঙ্গে টুর্নামেন্টের ডিরেক্টর বলেন, ‘ওর পোশাক একটু বেশি আকর্ষণীয় ছিলো। তাই ওকে টুর্নামেন্ট থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

তবে দেশটির ক্রীড়ামোদীরা ঘটনাটিকে স্কুল কমিটির বাড়াবাড়ি হিসেবে দেখছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকেই। ক্ষোভের মুখে দাবা ফেডারেশন ঘটনার তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ঘটনায় ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন কিশোরীর কোচ কুশল খান্দার।

সংবাদ সংস্থা এএফপিকে তিনি বলেন, ‘এই ঘটনায় আমি খুবই হতাশ। কারণ ফিডের নিয়মে পোশাক নিয়ে কিছুই বলা নেই। সত্যিই আমরা কোন দুনিয়ায় বাস করছি! আমি মালয়েশিয়ায় প্রায় দু’দশক আছি। কিন্তু এরকম ঘটনা এই প্রথম। টুর্নামেন্টের মাঝপথে এইভাবে এক
প্রতিযোগীকে বাইরে বের করে দেওয়া চূড়ান্ত লজ্জাজনক।’

অলিম্পিক কাউন্সিলের সাবেক মহাসচিব বলেছেন, ‘আমি বেশ অবাক ও বিব্রত হয়েছি তার পোশাকের দিকে আঙুল তোলায়। ও মাত্র ১২ বছরের। কেউ তার পোশাকের অধিকার কেড়ে নিতে পারে না। এটা তার নিজস্ব ব্যাপার।’

No comments

Powered by Blogger.